বিজিএমইএ এর বাজেট বিষয়ক প্রতিক্রিয়া

 

২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট  বিষয়ে পোশাক শিল্পের প্রতিক্রিয়া জানানোর জন্য ০৪ জুন ২০১৭ তারিখে বিজিএমইএ এর সভাকক্ষ, কাওরান বাজার, ঢাকাতে বিজিএমইএ একটি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে

এই সংবাদ সম্মেলনে বিজিএমইএ এর পক্ষ থেকে জনাব সিদ্দিকুর রহমান,সভাপতি বিজিএমইএ বক্তব্য পেশ করেন । এ সময় অন্যান্য পরিচালকগনও উপস্থিত ছিলেন ।

তিনি বক্তব্যের শুরুতে দেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়নে বর্তমান সরকারের প্রশংসা করেন এবং ১১তম বাজেট উপস্থাপনের    ও বাজেট উপস্থাপনের সময় পোশাক শিল্প বিষয়ে সহানুভূতিময় বক্তব্যের জন্য মাননীয় অর্থ মন্ত্রী জনাব আবুল মাল আব্দুল মুহিত কে পোশাক শিল্প পরিবারের  পক্ষ থেকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন । এ সময় তিনি পোশাক শিল্পের বর্তমান সংকটময় পরিস্থিতি বর্ণনা করেন এবং বলেন যে, গত ৩৫ বছরের ইতিহাসে পোশাক শিল্প এতো সংকটময় ও প্রতিকূল পরিস্থিতির মুখোমুখি আর হয় নি। এ সময় তিনি বলেন চলতি অর্থবছরের জুলাই-এপ্রিল সময়ে আমাদের নীটওয়্যার রপ্তানী বৃদ্ধি পেয়েছে মাত্র ৪.৮১%, আর ওভেন পোশাক রপ্তানী কমেছে ০.১৪% । উল্লেখিত সময়ে গড়ে  পোশাক রপ্তানী প্রবৃদ্ধি কমে দাঁড়িয়েছে মাত্র ২.২১%, যেখানে বিগত ১০ বছরে আমাদের গড় অর্জিত রপ্তানী প্রবৃদ্ধি ১৩%। এই ২.২১% প্রবৃদ্ধিকে প্রবৃদ্ধি বলা যৌক্তিক হবে না । উল্লেখিত সময়ে আমাদের রপ্তানী লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় কমেছে ৬.৬০৬% । ফলে আমাদের রপ্তানী আয়ও  সাম্প্রতিক সময়ে কমে এসেছে । অন্য দিকে এ্যাকোর্ড ও এ্যালায়েন্স এর চাপে পোশাক শিল্প পর্যদুস্ত । রানা প্লাজা দুর্ঘটনার পর উদ্যোক্তারা হাজার হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছেন কারখানা ঠিক করতে । রানা প্লাজা দুর্ঘটনার পর বিভিন্ন কারনে সক্ষমতা হারিয়ে প্রায় ১ হাজার ২০০ কারখানা বন্ধ হয়ে গেছে। এখন কোন ভুল সিদ্ধান্ত নেওয়া হলে আরও অনেক কারখানা বন্ধ হয়ে যাবে । এতে করে বিপুল সংখ্যক শ্রমিক বেকার হয়ে পড়বে – এসব শ্রমিক অন্য কোথাও যাবে সে জায়গাটিও নেই ।

সংকটময় পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে শ্রম নিবিড় পোশাক শিল্প খাত টিকে বাঁচিয়ে রাখা জন্য শিল্পে নিবিড় সহায়তা ও প্রনোদনা প্রদানের বিকল্প নেই। তাই প্রস্তাবিত বাজেট বিষয়ে তিনি বলেন

কর সংক্রান্ত:
১। পোশাক শিল্প থেকে আমাদের একান্ত অনুরোধ ছিলো বর্তমান পরিস্থিতিতে পোশাক শিল্পের সংকটময় পরিস্থিতি বিবেচনা করে পোশাক রপ্তানীর উপর উৎসে কর আগামী দুই বছরের জন্য সম্পূর্ণ  ভাবে প্রত্যাহার করা হোক । কিন্তু দুঃখের বিষয় উৎসে কর প্রত্যাহার তো হয় নি বরং বাজেট প্রস্তাবনা অনুযায়ী পোশাক খাতে উৎসে কর বেড়ে ১% হচ্ছে । উল্লেখ্য, বিদ্যমান আয়কর অধ্যাদেশের ৫৩(বিবি) ধারায় রপ্তানীর উৎস কর ১% নির্ধারিত রয়েছে । গত বছরের বিশেষ আদেশের (এসআরও) ম্যাধমে তা এক   বছরের জন্য ০.৭০% করা হয় । চলতি অর্থবছর শেষে তা যথারীতি ১%হচ্ছে ।

আমরা মনে করি বর্তমান পরিস্থিতিতে এটি বিশেষ করে পোশাক শিল্পে বহাল রাখা হলে শিল্পের বিকাশ নিশ্চিতভাবেই ব্যাহত হবে । তাই মাননীয় অর্থ মন্ত্রীর প্রতি বিনীত অনুরোধ, শিল্প বিপদে রয়েছে । আমাদের জন্য ২টি বছর উৎসে কর ০.০% করে দিন।

২। আমরা সরকারকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই যে, বাজেট প্রস্তাবনায় কর্পোরেট করের হার ২০% থেকে হ্রাস করে ১৫% (পরিবেশবান্ধব কারখানার ক্ষেত্রে ১৪%) নির্ধারন করা হয়েছে । তবে আমাদের মতে, প্রস্তাবিত কর হার আর ও হ্রাস করা দরকার ।

শিল্পের প্রতিযোগি সক্ষমতা বিবেচনায় নিয়ে কর্পোরেট কর হার পূর্বের ন্যায় ১০% করা ও তা আগামী ০৫ বছরের জন্য কার্যকর রাখার জন্য সরকার কে অনুরোধ জানাচ্ছি ।

প্রণোদনাঃ
আমাদের একান্ত অনুরোধ, বর্তমান সংকটময় পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে পোশাক খাতের সুরক্ষায় আগামী ২ বছরের জন্য পোশাক রপ্তানীর এফ ও বি মূল্যের উপর প্রচলিত সুবিধাগুলোর অতিরিক্ত ৫% হারে নগদ সহায়তা প্রদান করা হোক, জা শুধুমাত্র বিজিএমইএ এবং বিকেএমইএ এর সদেস্য প্রতিষ্ঠানের জন্য প্রযোজ্য হবে ।

এসময় তিনি জাতীয় অর্থনীতিতে পোশাক খাতের অবদান তুলে ধরে বলেন, পোশাক শিল্প আজ জাতীয় সম্পদ – এ শিল্পটি কারও ব্যক্তিগত সম্পদ নয়। পোশাক শিল্পের সঙ্গে জড়িয়ে আছে ৪৪ লাখ শ্রমিকের ভাগ্য । ২০১৫-২০১৬ অর্থবছরে আমরা শ্রমিক ভাই বোনদের কে মজুরি দিয়েছি প্রায় ৩৩,০০০ কোটি টাকা। এছাড়াও পোশাক শিল্পখাত থেকে উল্লেখিত সময়ে দেশের ভেতরে অন্যান্য সেবাখাতে পরিশোধ করেছি প্রায় ৯,০০০ কোটি টাকা।

সবশেষে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, আমরা যদি কোনভাবে আর ২ বছর নিজেদেরকে টিকিয়ে রাখতে পারি, তবে আমরা ঘুরে দাড়াতে সক্ষম হবো – এ দৃঢ় বিশ্বাস আমাদের রয়েছে । তাই মাননীয় অর্থ মন্ত্রী, মাননীয় বানিজ্য মন্ত্রী ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের মাননীয় চেয়ারম্যান এর সদয় দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলছি, এমন পদক্ষেপ গ্রহন করুন জাতে শিল্প বিকাশের পথ রুদ্ধ না হয়ে সামগ্রিক অর্থনীতিতে আরও অবদান রাখতে পারে ।

জনাব সিদ্দিকুর রহমানের ব্ক্তব্য______________

প্রশ্নোত্তর পর্ব______________

 

উৎস : ওটিজিএল

 

Leave a Reply

*